মুক্তিযুদ্ধে পাকিস্তানি বাহিনীর গুলিতে নিহত পরশুরামের ১৬ জন এখনও শহীদের মর্যাদা পাননি

Image

মুক্তিযুদ্ধে পাকিস্তানি বাহিনীর গুলিতে নিহত পরশুরামের ১৬ জন এখনও শহীদের মর্যাদা পাননি

শাহজালাল রতন: ৪ নভেম্বর ১৯৭১। শীতের সকালে সবে সূর্য উঁকি দিয়েছে। কুয়াশাঢাকা সকালে পরশুরামের মালিপাথর গ্রামের লোকজনেরও সবে ঘুম ভেঙেছে। হঠাৎ চারদিকে চিৎকারের ধ্বনি। ভেসে আসছে কান্নার আওয়াজ। ধীরে ধীরে কাছে চলে এলো সেই শব্দ। শুরু হলো রাইফেলের গর্জন। গ্রামে পাকিস্তানি বাহিনী পড়েছে। ঘেরাও করেছে পুরো গ্রাম। চারদিকে চিৎকার, কান্নাকাটি। পাকিস্তানি বাহিনীর গুলিতে ও বেয়নেটের আঘাতে শহীদ হন গ্রামের ১৯ জন। এই বর্ণনা গ্রামের বৃদ্ধ শিক্ষক নূরুল আমিনের। তিনি সেদিনের বর্বরতার প্রত্যক্ষদর্শী। তার অভিযোগ, বধ্যভূমিটি আজও সংরক্ষিত হয়নি। নিয়মিত ঝোপঝাড় পরিস্কার না করায় এক ভূতুড়ে পরিবেশের সৃষ্টি হয়েছে এখানে। শিক্ষক নূরুল আমিন বলেন, ১৯৭১ সালের ৪ নভেম্বরের আগের রাতে মুক্তিবাহিনীর একটি দল পার্শ্ববর্তী এলাকায় অবস্থিত পাকিস্তানি বাহিনীর ক্যাম্পে হানা দিয়ে ব্যাপক ক্ষতি করে। এ ঘটনার প্রতিশোধ নিতে পাকিস্তানি বাহিনীর একটি দল সকালে মালিপাথর গ্রামের সাধারণ মানুষের ওপর ঝাঁপিয়ে পড়ে। দিনভর চলে নির্যাতন, গণহত্যা আর অগ্নিসংযোগ। সেদিন মালিপাথর গ্রামের ৪০টি পরিবারের বসতঘর পুড়িয়ে দেয় পাকিস্তানি বাহিনী। গুলি করে হত্যা করা হয় ১৯ জনকে। নূরুল আমিন জানান, সেদিন পাকিস্তানি বাহিনীর হাতে মৃত্যুবরণ করেন তার দাদা মুন্সি সৈয়দের রহমান, বাবা হাবিব উল্লাহ, চাচা মফিজুর রহমানসহ তাদের পরিবারের পাঁচজন। গ্রামের বাসিন্দা আরিফ পাঠান বলেন, সেই রাতে নিহত ১৯ জনকে কাফন ছাড়াই আতঙ্কের মধ্যে কোনোভাবে কবর দেওয়া হয়। কিন্তু দুঃখের বিষয়, সরকারের পক্ষ থেকে এই বধ্যভূমি বা গণকবর সংরক্ষণ করে স্মৃতিস্তম্ভ স্থাপনের নির্দেশনা থাকলেও নানা কারণে তা আজও বাস্তবায়িত হয়নি। প্রশাসন একটি ফলক লাগিয়ে দায়িত্ব শেষ করেছে। নিহতদের শহীদের মর্যাদাও দেওয়া হয়নি বলে তাদের পরিবারের অভিযোগ। বারবার আবেদনের পর মাত্র তিনজনকে শহীদের মর্যাদা দেওয়া হয়। পরশুরাম উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান কামাল মজুমদার বলেন, মালিপাথর বধ্যভূমিতে কিছু উন্নয়নকাজ হয়েছে। প্রতিরক্ষা দেয়াল ও নামফলক স্থাপন করা হয়েছে। এ ছাড়া আরও কিছু উদ্যোগ হাতে নেওয়া হয়েছে। জানতে চাইলে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ইয়াসমিন আক্তার বৃহস্পতিবার বলেন, তিনি সরেজমিনে পরিদর্শন করে এ বিষয়ে ব্যবস্থা নেবেন।
Advertisement

ফেইসবুক লাইক
অন্যান্য পত্রিকা

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ :
Image

পরশুরাম সংবাদদাতা: পরশুরামের সুবার বাজার সড়কে গাছ পড়ে মো: গোফরান (৩৫) নামের বিস্তারিত

Image

পরশুরাম সংবাদদাতা: পরশুরামে মা-বাবার উপর অভিমান করে ঘর ছেড়ে পালানো এক বিস্তারিত

Image

পরশুরাম সংবাদদাতা: পরশুরামে মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে দুর্ধর্ষ বিস্তারিত

Image

পরশুরাম সংবাদদাতা: পরশুরাম পৌরসভার নির্বাচনে মেয়র-কাউন্সিলর পদে বিএনপি বিস্তারিত

Image

পরশুরাম সংবাদদাতা: পরশুরাম পৌরসভার নির্বাচনে বিএনপি মেয়র প্রার্থী কাজী বিস্তারিত

Image

পরশুরাম সংবাদদাতা: পরশুরামে যুবলীগের ৪৮তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন বিস্তারিত

Image

পরশুরাম সংবাদদাতা: পরশুরাম উপজেলা ও পৌর বিএনপির সদ্য ঘোষিত আহবায়ক কমিটি বিস্তারিত

Image

পরশুরাম সংবাদদাতা: পরশুরামে শাপলা ফুল তুলতে গিয়ে শারমিন আক্তার(৯)নামের এক বিস্তারিত







প্রধান সম্পাদক : এস এম ইউসুফ আলী
নির্বাহী সম্পাদক : মোঃ ওমর ফারুক
বার্তা সম্পাদক : এম ডি ফখরুল ইসলাম
তাসলিমা আক্তার লিমু কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।

হাজী শাহ আলম টাওয়ার (৪র্থ তলা), শহীদ শহীদুল্লাহ কায়সার সড়ক, ফেনী।

মোবাইল: ০১৮১২-১৫৯৯৬১, ০১৯১৯-১৫৯৯৬১, ০১৭১১ ৩৪১২৩৫

ই-মেইল : eusufpress@gmail.com, newsfenireport.com

Developed By: SBIT

© fenireport.com Site All Rights Reserved