শুক্রবার, ১৪ জুন ২০২৪ ইং
  • প্রচ্ছদ

  • বাংলাদেশ

  • রাজনীতি

  • বিশ্ব

  • বাণিজ্য

  • মতামত

  • খেলা

  • বিনোদন

  • চাকরি

  • জীবনযাপন

  • শিক্ষা

  • প্রযুক্তি

  • ফেনী

  • খেলা

    এনজো যাঁদের পেছনে ফেলে ‘সবচেয়ে দামী আর্জেন্টাইন’

    থেকে
    প্রকাশ: ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৩ ইং
          1254
    ছবি:
      Print News

    ইতিহাস গড়েছেন এনজো ফার্নান্দেজ। গতকাল মধ্যবর্তী দলবদলের শেষ দিনে বাংলাদেশি মুদ্রায় ১ হাজার ৩৯৯ কোটি টাকায় (১২ কোটি ১০ লাখ ইউরো) পর্তুগিজ ক্লাব বেনফিকা থেকে ইংলিশ ক্লাব চেলসিতে যোগ দেন আর্জেন্টিনার ২২ বছর বয়সী মিডফিল্ডার। দলবদলে কোনো ইংলিশ ক্লাবের এটিই সবচেয়ে বেশি খরচের রেকর্ড। ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের ইতিহাসে এনজোই এখন সবচেয়ে দামি ফুটবলার। আর্জেন্টাইন ফুটবলারদের মধ্যেও তিনি সবচেয়ে দামি।

    কাতার বিশ্বকাপে দুর্দান্ত খেলে সেরা উদীয়মান ফুটবলার হন এনজো ফার্নান্দেজ। গত সেপ্টেম্বরেই আর্জেন্টিনার জার্সিতে তাঁর আন্তর্জাতিক অভিষেক হয়। বেনফিকাতেও তাঁর পারফরম্যান্স ছিল নজরকাড়া। এনজো চেলসিতে যোগ দেওয়ার পর স্বাভাবিকভাবেই প্রশ্ন ওঠে, এর আগে দলবদলের বাজারে শীর্ষ আর্জেন্টাইন ফুটবলার কারা ছিলেন। এনজোর আগে দামে শীর্ষ চার আর্জেন্টাইন ফুটবলারের তালিকা নিচে দেওয়া হলো।

    আনহেল দি মারিয়া (ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড থেকে পিএসজি—৪ কোটি ৪৩ লাখ পাউন্ড)

    ২০১৪ সালে এক মৌসুমের জন্য ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডে খেলেছিলেন আনহেল দি মারিয়া। রিয়াল মাদ্রিদ থেকে এসেছিলেন। প্রত্যাশা অনেক ছিল কিন্তু তেমন ভালো করতে পারেননি। ইউনাইটেড শেষ পর্যন্ত আর্জেন্টাইন তারকাকে ২০১৫ সালে ৪ কোটি ৪৩ লাখ পাউন্ডে বেচে দেয় পিএসজির কাছে।

    ফরাসি ক্লাসে সাত মৌসুম খেলে দি মারিয়া জিতেছেন পাঁচটি লিগ শিরোপা। পাঁচটি ফ্রেঞ্চ কাপের শিরোপা ও চারটি লিগ কাপ। ২০২২ সালে জুভেন্টাসে যাওয়ার আগপর্যন্ত পিএসজির জার্সিতে ২৯৫টি ম্যাচ খেলেছিলেন দি মারিয়া।

    দি মারিয়াই ২০১৪ সালে রিয়াল মাদ্রিদ থেকে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডে খেলতে এসেছিলেন ৫ কোটি ৯৭ লাখ পাউন্ডে। সেটি সে সময়ে ছিল ইংলিশ ফুটবলে রেকর্ড অর্থের দলবদল। আর আর্জেন্টিনার তখন সবচেয়ে দামি খেলোয়াড়ও ছিলেন দি মারিয়াই। রিয়াল মাদ্রিদের হয়ে আগের মৌসুমেই দি মারিয়া জিতেছিলেন চ্যাম্পিয়নস লিগের শিরোপা।

    মাউরো ইকার্দি (ইন্টার থেকে পিএসজি—৪ কোটি ৫০ লাখ পাউন্ড)

    ২০১৯ সালে ইন্টার মিলান থেকে পিএসজিতে যোগ দেন মাউরো ইকার্দি। এর আগে ইন্টার মিলানের সঙ্গে তাঁর সম্পর্কটা মোটেও ভালো যাচ্ছিল না। লুসিয়ানো স্পালেত্তির অধীন অধিনায়কত্ব হারিয়েছিলেন। আন্তোনিও কন্তে কোচ হয়ে আসার পর দল থেকেই বাদ পড়ে যান। ১৮১টি লিগ ম্যাচ খেলে গোল করেছিলেন ১১১টি। এরপর ধারে পিএসজিতে যান। সেখানে করোনাভাইরাস মহামারিতে মৌসুম সংক্ষিপ্ত হয়ে যাওয়ার আগপর্যন্ত পিএসজির হয়ে ৩১ ম্যাচে করেছিলেন ২০ গোল।


    আপনার মন্তব্য লিখুন
    Total Visitors : 441622

    প্রধান সম্পাদক : এস এম ইউসুফ আলী

    নির্বাহী সম্পাদক : শাহাদাত হোসাইন 

    বার্তা সম্পাদক : এম ডি ফখরুল ইসলাম

    তাসলিমা লিমু কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।

    হাজী শাহ আলম টাওয়ার , শহীদ শহীদুল্লাহ কায়সার সড়ক, ফেনী।

    মোবাইল: ০১৮১২-১৫৯৯৬১, ০১৯১৯-১৫৯৯৬১, ০১৮১১ ৬৪০৬০৮

    ই-মেইল : eusufpress@gmail.com, newsfenireport.com